মঙ্গলবার, ১৬-অক্টোবর ২০১৮, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন
  • অপরাধ
  • »
  • শাহজালালে বিপুল সংখ্যক বিপন্ন পাখি ও বন্যপ্রাণী উদ্ধার

শাহজালালে বিপুল সংখ্যক বিপন্ন পাখি ও বন্যপ্রাণী উদ্ধার

Shershanews24.com

প্রকাশ : ০৭ আগস্ট, ২০১৮ ০৩:৩৩ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, ঢাকা: হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিপুল সংখ্যক বিপন্ন পাখি ও বন্যপ্রাণী উদ্ধার করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও ঢাকা কাস্টম হাউস। মঙ্গলবার দুপুরে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. সহিদুল ইসলাম বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যৌথ অভিযান চালিয়ে ১৭০ জোড়া লাভবার্ড,৩ জোড়া বেবি প্যারেট, ৩ জোড়া কাকাতুয়া, ১০ জোড়া কনুর, ৩ জোড়া ময়ুর, ১ জোড়া এরা অ্যারোনা, ৫ জোড়া গ্রীন উইং প্যারাকিট,
২ জোড়া অ্যারাউনা, ২ জোড়া বাজ্রিগার, ১ জোড়া লামুর র‌্যাবিট ও ২ জোড়া মারমুস র‌্যাবিট অর্থাৎ মোট ২০২ জোড়া বিপন্ন পাখি ও বণ্যপ্রাণী উদ্ধার করা হয়েছে।
তিনি বলেন, সোমবার রাত সাড়ে ১১টায় এগুলো উদ্ধার করে বন কর্তৃপক্ষের জিম্মায় দেয়া হয়। গত রোববার ইনফোবিজ ইন, বিডি ইনোভেটিভ লাইভস্টকস ও সজীব এন্টারপ্রাইজ নামের আমদানিকারকরা দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে এয়ারওয়েতে এই পাখি ও বন্যপ্রাণীগুলো আমদানি করে।
শুল্ক গোয়েন্দার ডিজি আরো বলেন, আন্তর্জাতিক কনভেনশন অনুসারে বিপন্ন তালিকাভুক্ত প্রাণীদের আমদানির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নন-ডেট্রিমেন্টাল রিপোর্ট না থাকায় ও বন অধিদপ্তরের অনাপত্তি (ঘঙঈ) ছাড়া আমদানি করার কারণে তাদের এই চালান আটক করা হয়েছে। আটক করা পাখি ও বন্যপ্রাণীর আনুমানিক বাজারমূল্য প্রায় ৪৪ লাখ টাকা।
আমদানিকারকের বিরুদ্ধে শুল্ক আইনসহ অন্যান্য আইন লঙ্ঘনের কারণে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান সহিদুল ইসলাম।
শুল্ক গোয়েন্দার পক্ষ থেকে জানানো হয়, কার্গো ভিলেজে অতিরিক্ত গরমে পাখি ও বন্যপ্রাণীগুলো মুমূর্ষু হয়ে যাওয়ায় আমদানিকারক, সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ, লাইভস্টক কোয়ারেন্টাইন কর্তৃপক্ষ, বন অধিদপ্তর কর্তৃপক্ষ ও কাস্টমসসহ সকলের মতৈক্যের ভিত্তিতে সেগুলোকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের খাঁচায় সংরক্ষণের জন্য বন অধিদপ্তরের জিম্মায় দেয়া হয়েছে।
শীর্ষনিউজ/এমএইচ