বৃহস্পতিবার, ১৮-জুলাই ২০১৯, ০১:২৫ পূর্বাহ্ন
  • খেলা
  • »
  • স্টার্ক-বুমরাহদের মোকাবেলায় প্রস্তুত বাংলাদেশ 

স্টার্ক-বুমরাহদের মোকাবেলায় প্রস্তুত বাংলাদেশ 

shershanews24.com

প্রকাশ : ১৮ জুন, ২০১৯ ০৭:৫৬ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ ডেস্ক: ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোলারদের বাউন্স ও গতিময় বোলিংয়ের বিপক্ষে দারুণ খেলেছে বাংলাদেশ ব্যাটসম্যানরা। শেল্ডন কটরেল, শ্যানন গ্যাব্রিয়েল, ওশানে থমাসদের শর্ট বল পরীক্ষায় ১০০% নম্বর পেয়ে পাস করেছেন তারা।

কিন্তু সামনে আরও বড় পরীক্ষা অপেক্ষা করছে তামিম, সাকিব, লিটনদের জন্য। মোকাবেলা করতে হবে মিচেল স্টার্ক-জাসপ্রিত বুমরাহদের মতো বিশ্বমানের পেসারদের। তবে তাদের বাউন্স ও গতির বিপক্ষে পরীক্ষা দিতে প্রস্তুত তারা।

উইন্ডিজের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে সাকিবের সঙ্গে ১৮৯ রানের জুটি গড়েন লিটন। চলতি বিশ্বকাপে যা সর্বোচ্চ পার্টনারশিপের রেকর্ড। তাতে ঐতিহাসিক জয় তুলে নেয় মাশরাফি বাহিনী। ব্যাট হাতে ৬৯ বলে ৯৪ রানের পরিপক্ব অপরাজিত ইনিংস খেলে তাতে অবদান রাখেন লিটন। জয়সূচক রানটিও এসেছে তার ব্যাট থেকে। স্বভাবতই আত্মবিশ্বাসী তিনি।

অনবদ্য ঝড়ো ইনিংস খেলার পর লিটন বলেন, গ্যাব্রিয়েল-থমাসদের বিপক্ষে যেভাবে নিয়ন্ত্রিত ব্যাটিং করেছি; ভারত- অস্ট্রেলিয়ার পেসারদেরও সেভাবে খেলতে চাই আমরা। অজি পেসাররাও শর্ট বল করতে পারে। ভারতীয় ফাস্ট বোলারাও করতে পারে। এদিন যেভাবে নিয়ন্ত্রণ করলাম, ওইভাবেই করতে হবে।

আগামী ২০ জুন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। এরপর ২ জুলাই ভারত চ্যালেঞ্জ। সবশেষ গ্রুপপর্বে ৫ জুলাই পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে টাইগাররা।

ম্যাচ বাই ম্যাচ পরিকল্পনা করলে সবার আগে স্টার্ক, কামিন্স, রিচার্ডসনদের গতিময় বাউন্সের বিপক্ষে পরীক্ষা দিতে হবে মাশরাফি-সাকিবদের। পরে বুমরাহ-ভুবনেশ্বরদের। এরপর আমির-রিয়াদের সামলাতে হবে তাদের।

সেমিফাইনালের আশা পূরণ করতে হলে সেই পরীক্ষায় উতরাতে হবে বাংলাদেশকে। ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে দাপুটে ব্যাটিং তিন ম্যাচের আগে আত্মবিশ্বাসী করেছে ব্যাটসম্যানদের। আসন্ন ম্যাচগুলোতে যা ভীষণ কাজে দেবে বলে বিশ্বাস লিটনের।
শীর্ষকাগজ/এসএসআই