রবিবার, ১৮-আগস্ট ২০১৯, ০৭:৪৯ অপরাহ্ন
  • খেলা
  • »
  • ইনজুরি নেই, আমাকে জোর করে বাদ দেয়া হয়েছে

ইনজুরি নেই, আমাকে জোর করে বাদ দেয়া হয়েছে

shershanews24.com

প্রকাশ : ১০ জুন, ২০১৯ ০৩:৫৫ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ ডেস্ক: বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে ছিটকে যাওয়া আফগান ওপেনার উইকেটরক্ষক মোহাম্মদ শেহজাদ। বিশ্বকাপের দুই ম্যাচ শেষ করেই ছিটকে গেলেন আফগানিস্তানের উইকেটরক্ষক ওপেনিং ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ শেহজাদ।
বিশ্বকাপের আগে পাওয়া হাঁটুর চোট নাকি ফের মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছিল তার। তাই ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসরকে বিদায় জানাতে হয় তাকে। এমনটিই জানা গেছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম থেকে। শেহজাদের বদলে দলে যোগ দিয়েছেন দেশটির ১৮ বছর বয়সী ইকরাম আলি খিল। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটির টুর্নামেন্ট টেকনিক্যাল কমিটির অনুমতি নিয়েই নিজেদের দলে এ পরিবর্তন এনেছে আফগানিস্তান। সে হিসাবে ইংল্যান্ডে আর থাকা হচ্ছে না শেহজাদের। আজ সোমবার ইংল্যান্ড থেকে দেশে ফিরছেন তিনি।
কিন্তু দেশে ফেরার আগে আফগান ক্রিকেট বোর্ডের বিরুদ্ধে এক গুরুতর অভিযোগ করলেন শেহজাদ। তার অভিযোগ, পুরোপুরি ফিট আছেন তিনি। চাইলে পরবর্তী ম্যাচে ব্যাট হাতে ওপেনিংয়ে নামতে পারবেন। কিন্তু জোর করেই বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ দেয়া হয়েছে তাকে। গত শনিবার মোহাম্মদ ইব্রাহীম মোমান্ড নামে দেশটির একজন ক্রীড়া সাংবাদিকের টুইটে এসব কথা উঠে আসে।
ওই সাংবাদিক নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে লেখেন, মোহাম্মদ শেহজাদ বলেছেন- আমার ইনজুরিগত কোনো সমস্যা নেই এবং খেলার জন্য সম্পূর্ণ সুস্থ। আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড কোনো পরামর্শ না করেই আমাকে জোর করে দল থেকে বাদ দিয়ে দেয়। টুইটে শেহজাদের এই বক্তব্য আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে ট্যাগ করে দেন মোহাম্মদ ইব্রাহীম। এ ছাড়া শেহজাদের একটি কান্নারত ছবি পোস্ট করে তিনি জানান, এ বিষয়ে আফগান ওপেনারের একটি অডিওবার্তাও রয়েছে।


তবে কাবুলের সেই ক্রীড়া সাংবাদিকের পক্ষ থেকে দেয়া মোহাম্মদ শেহজাদের এমন বক্তব্যের সত্যতা এখনও পাওয়া যায়নি। তা ছাড়া দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে রেখে কেন নবীন ক্রিকেটার বেছে নেবে খোদ আফগান দলেও এমন প্রশ্নও উঠেছে।
প্রসঙ্গত এর আগেও বিতর্কিত হয়েছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। বিশ্বকাপ শুরুর মাসখানেক আগে নিজেদের নিয়মিত অধিনায়ক আসগর আফগানকে অধিনায়কত্ব থেকে বাদ দিয়ে বিতর্কের জন্ম দিয়েছিল সংস্থাটি। এবার মোহাম্মদ শেহজাদকে স্কোয়াড থেকে বাদ দেয়া নিয়ে নতুন বিতর্কের জন্ম দিল তারা।
শীর্ষকাগজ/আর