মঙ্গলবার, ১৮-জুন ২০১৯, ১১:৪০ পূর্বাহ্ন
  • খেলা
  • »
  • রেকর্ড গড়েই ম্যাচ জেতালেন মোসাদ্দেক

রেকর্ড গড়েই ম্যাচ জেতালেন মোসাদ্দেক

Sheershakagoj24.com

প্রকাশ : ১৮ মে, ২০১৯ ০৮:৪৭ পূর্বাহ্ন

শীর্ষকাগজ ডেস্ক: মোহাম্মদ মিঠুনের আউটের পর বাংলাদেশ দল একটু হলেও অস্বস্তি টের পাচ্ছিল। ১৬তম ওভারের খেলা চলছে। লক্ষ্যটা খুব একটা কঠিন নয়। ৫০ বলে ৬৭ রান তো খুব একতা কঠিন লক্ষ্য নয়। হাতে যখন আছে আছে ৫ উইকেট।
মাহমুদউল্লাহ উইকেটে থাকাতেই ভরসা মিলছিল। অন্য প্রান্তে থাকা মোসাদ্দেক তখনো অতিথি চরিত্র।, পার্শ্ব নায়ক। দলকে জয় এনে দেওয়ার কাজটা তো মাহমুদউল্লাহকেই করতে হবে। অমিত সম্ভাবনা নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আবির্ভূত হওয়া মোসাদ্দেক যে বহুদিন ধরেই ব্যাটিংয়ে আর দলকে ঠিক ভরসা দিতে পারেন না। ক্যারিয়ারে একমাত্র ফিফটির বয়স আড়াই বছর হয়ে গেছে। বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মোটামুটি রান তোলার স্মৃতিতেও দুই বছরের ধুলো। মোসাদ্দেককে আর যাই হোক ভরসা মানা যায় না।
চতুর্থ বলে মোসাদ্দেকের চারের পরও ধারণা পাল্টায়নি। ১৯তম ওভারে হোল্ডারকে লেগ সাইডে উড়িয়ে মারার পরও কিছুক্ষণ দম নিলেন মোসাদ্দেক। ২১তম ওভারে আর তর সইল না মোসাদ্দেকের। ৪ ওভারে ৩৯ রানের সমীকরণকে আর জটিল বানাতে ইচ্ছে হলো না তাঁর। একস্ট্রা কাভারের ওপর দিয়ে অসাধারণ এক শটে ছক্কা। সে ওভারেই সমীকরণটা ১৮ বলে ২৭ হয়ে গেল। ১৫ বলে ২৬ রান নিয়ে ২২তম ওভার শুরু করলেন মোসাদ্দেক।
ফ্যাবিয়েন অ্যালানের প্রথম বলেই রিভার্স হিট। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ছক্কা। পরের বলে অনেকটাই প্রথাগত শট। এগিয়ে এসে লং অফ দিয়ে আরেক ছক্কা। নড়ে চড়ে বসতেই হলো। বিশেষ কিছু কি হতে যাচ্ছে? অ্যালান বুদ্ধি করে দ্রুত গতির বল ছাড়লেন। কিন্তু তাঁর চেয়েও বেশি বুদ্ধি দেখিয়ে চার মারলেন মোসাদ্দেক। চতুর্থ বলেও মোসাদ্দেক থামলেন না। কভার দিয়ে ছক্কা! ম্যাচ নিয়ে সৃষ্টি হওয়া সব অনিশ্চয়তা ততক্ষণে শেষ। তখন অন্য কিছুর অপেক্ষা। ১৯ বলে ৪৮ রান তখন মোসাদ্দেকের।
পঞ্চম বলটা মিড উইকেটে ঠেলে দিয়েই ভোঁ দৌড়। ছুট, ছুট, ছুট। দুই রান এল, আর সে সঙ্গে মোহাম্মদ আশরাফুলকে ছিটকে দিয়ে ওয়ানডেতে দ্রুততম ফিফটির বাংলাদেশি রেকর্ডটা দখলে নিয়ে নিলেন মোসাদ্দেক। মাত্র ২০ বলে এল ফিফটি। সেটাও কতটা চাপের মুহূর্তে। জয় থেকে বাংলাদেশ তখনো ৩ রান দূরে ছিল। কিন্তু ফাইনাল জেতার লক্ষ্যটা অর্জিত হচ্ছে সেটা ততক্ষণে নিশ্চিত হয়ে গেছে। সে অর্জনের সঙ্গে বাড়তি উপহার মোসাদ্দেকের এই রেকর্ড।
শীর্ষকাগজ/জে