মঙ্গলবার, ২২-জানুয়ারী ২০১৯, ০৯:৪৪ পূর্বাহ্ন
  • খেলা
  • »
  • স্মিথের বিপিএল শেষ

স্মিথের বিপিএল শেষ

Sheershakagoj24.com

প্রকাশ : ১২ জানুয়ারী, ২০১৯ ০২:৩৪ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ ডেস্ক : ধারণা করা হচ্ছিলো অস্ট্রেলিয়া থেকে প্রয়োজনীয় চেকআপ করিয়ে খুব শীঘ্রই কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের সঙ্গে যোগ দেবেন স্টিভেন স্মিথ। কনুইয়ের ইনজুরির কারণে দেশের উদ্দেশে ঢাকায় ছাড়ার সময় এই আশাবাদই ছিলো কুমিল্লা ফ্র্যাঞ্চাইজির সম্বল।

তখনই শঙ্কা ছিলো, যদি সার্জারির প্রয়োজন হয় কনুইতে তাহলে এবারের বিপিএলে আর তাকে পাবে না কুমিল্লা। শেষ পর্যন্ত সত্যি হয়েছে সেই শঙ্কাই। পরীক্ষা নিরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়েছে কনুইতে সার্জারি করাতেই হবে স্মিথকে। যে কারণে এবারের বিপিএলে আর খেলা হবে না তার।

শনিবার ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার এক মুখপাত্র নিশ্চিত করেছেন এ তথ্য। তিনি জানান, ‘আগামী মঙ্গলবার ডান কনুইয়ের লিগামেন্টের ইনজুরির অপারেশন করাতে হবে স্মিথকে। এই অপারেশনের পর মাঠে ফেরার আগে অন্তত ছয় সপ্তাহের জন্য হাত কাঁধের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখতে হবে। এরপরই তিনি মাঠে ফেরা ও রিহ্যাবিলেটিশন প্রক্রিয়ায় মন দিতে পারবেন।’

এর ফলে নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে আর ঢাকায় ফেরা হচ্ছে না অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়কের। এর পাশাপাশি পাকিস্তান সুপার লিগেও খেলতে পারবেন না তিনি। শুধু তাই নয় আগামী মার্চে নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার পরে যথাসময়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন কি-না সে ব্যাপারেও রয়েছে সংশয়।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার মুখপাত্রের ধারণা মার্চের ২৩ তারিখ পর্যন্ত মাঠে ফেরা হবে না স্মিথের। আর এমনটা হলে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজেও খেলতে পারবেন না তিনি। তবে একই দিন থেকে শুরু হতে যাওয়া আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে খেলার সুযোগ পেতেও পারেন স্মিথ। আর এমনটা হলে এপ্রিলের ২৩ তারিখে বিশ্বকাপের দল ঘোষণার আগে স্মিথের সাম্প্রতিক ফর্মের ব্যাপারেও ধারণা পাবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

উল্লেখ্য, কনুইয়ের ইনজুরিতে পড়ে বৃহস্পতিবার দেশে ফিরে গিয়েছিলেন স্টিভেন স্মিথ। অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে ডাক্তার দেখানোর পর যদি স্মিথ সুস্থ হন, তবেই তিনি বিপিএলে যোগ দিতে পারবেন- এমনটাই জানা গিয়েছিল তখন।

স্মিথের কনুইয়ের ইনজুরি একটু বিদঘুটে। তিনি ভুগছেন গলফার এলবো চোটে। টেনিস এলবো চোটের একেবারে উল্টোটা। অর্থ্যাৎ চোটটা কনুইয়ের ভেতরের অংশে। ব্যথা নিয়ে কোনো ঝুঁকিও নিতে চাননি তিনি। তাই ব্যক্তিগত চিকিৎসককে দেখাতে দ্রুত চলে গিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ায়।

শীর্ষকাগজ/এমই