মঙ্গলবার, ১৮-জুন ২০১৯, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন
  • আন্তর্জাতিক
  • »
  • ‘ইরান-ভীতি ছড়িয়ে আরব দেশগুলোর নিয়ন্ত্রণ নিতে চায় যুক্তরাষ্ট্র’

‘ইরান-ভীতি ছড়িয়ে আরব দেশগুলোর নিয়ন্ত্রণ নিতে চায় যুক্তরাষ্ট্র’

Sheershakagoj24.com

প্রকাশ : ২৩ মে, ২০১৯ ০২:৪২ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ, ঢাকা: সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজায়রা বন্দর ও ইরাকের গ্রিন জোনে সম্প্রতি হামলাকে পূর্বপরিকল্পিত আখ্যা দিয়ে ইরানের সামরিক বাহিনীর কমান্ডার-ইন চিফ মেজর জেনারেল আবদুর রহিম মুসাভি বলেছেন, আরব রাষ্ট্রগুলোর দুধ দুইয়ে নিতেই আমেরিকা এ অঞ্চলে ইরান-ভীতি ছড়াচ্ছে।
ইরান-ভীতি ছড়িয়ে আরব দেশগুলোর নিয়ন্ত্রণ নিতে চায় যুক্তরাষ্ট্র
তিনি বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজায়রা বন্দরে ও ইরাকের গ্রিন জোনে সম্প্রতি যে হামলা হয়েছে তা পূর্বপরিকল্পিত এবং এগুলোর লক্ষ্য হলো ইরান-ভীতি ছড়িয়ে আরব দেশগুলো থেকে দুধ দুইয়ে নেয়া।
গত রোববার ইরাকের রাজধানী বাগদাদের ‘গ্রিন জোনে’ মার্কিন দূতাবাস ভবন থেকে মাত্র আধা কিলোমিটার দূরের একটি ভবনে রকেট হামলা চালানো হয়।
ইরাকের গ্রিন জোনে রকেট হামলার আগে গত ১৪ মে সৌদি আরবের আরামকো তেল কোম্পানির দুটি অয়েল পাম্পিং স্টেশনে ড্রোন হামলা চালানো হয়। ইয়েমেনের ইরানপন্থী হুতিগোষ্ঠী ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে। হুতিদের এ হামলার নির্দেশ তেহরান দিয়েছে বলে অভিযোগ রিয়াদের।
তার দুদিন আগে সংযুক্ত আরব আমিরাত উপকূলে সৌদি আরবের দুটি তেলের ট্যাংকারে হামলা হয়।
যুক্তরাষ্ট্রের সন্দেহ ইরানের উসকানিতেই তাদের মিত্র শিয়া মিলিশিয়ারা বাগদাদের গ্রিন জোনে রকেট হামলা চালিয়েছে।
তবে ইরান রকেট হামলায় তাদের জড়িত থাকার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে। দেশটিতে ইরানের মিত্র দলগুলো ওই হামলার নিন্দাও জানিয়েছে।
উপসাগরীয় অঞ্চলে এসব হামলায় ক্ষতির জন্য ইরানকে দায়ী করছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও।
তিনি বলেছেন, উপসাগরীয় অঞ্চলে তেল স্বার্থে ক্ষতির জন্য মনে হচ্ছে ইরান দায়ী ছিল।
গত দশকে আমরা যেসব আঞ্চলিক দ্বন্দ্ব দেখেছি এবং আক্রমণের আকার দেখেছি, মনে হচ্ছে ইরান এসবের পেছনে ছিল।
শীর্ষকাগজ/জে