বুধবার, ২১-নভেম্বর ২০১৮, ১১:৪৩ পূর্বাহ্ন

আউট হলেন খাশোগি, সেঞ্চুরি হাঁকালেন ইমরান! 

Shershanews24.com

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০৮:১২ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ ডেস্ক: ২২ বছর সাধনার পর পাকিস্তানের ২২তম প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন ২২ গজ কাঁপানো ইমরান খান। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর চার-ছক্কা দূরের কথা, মাঠে টিকে থাকাই কঠিন হয়ে পড়েছে ইমরানের জন্য। দেশ চালানোরই টাকা নেই তার রাজভাণ্ডারে।
কোন উপায় না দেখে সরকারি গাড়ি বিক্রির উদ্যোগ নেন, জনগণকে রাজকোষে টাকা দেয়ার আহ্বান জানান ইমরান খান। তারপরও কিছুতেই যেন ব্যাটে রান পাচ্ছিলেন না। বন্ধুদের কাছে হাত পেতেও স্কোর বাড়াতে পারেননি বিশ্বকাপ জয়ী ইমরান।
ফলে নিজের পারফর্মেন্স ধরে রাখতে অন্য দেশ থেকে রান (বৈদেশিক মুদ্রা) সংগ্রহের দিকে নজর দেন ইমরান খান। চীন বহু আগেই তাকে সহায়তার ঘোষণা দিলেও নগদ অর্থ এখনো মেলেনি। এতে যারপরনাই বিপাকে ছিলেন পাকিস্তানের নয়া প্রধানমন্ত্রী।
তবে পাকিস্তানের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক দীর্ঘ দিনের। ইয়েমেনে সৌদি আরবের আগ্রাসী নীতিতে নিরবে সমর্থন দিচ্ছে পাকিস্তান। সৌদি আরবে পাকিস্তানের বহু সৈন্য একপ্রকার স্থানীয়ভাবে বসবাস করছে। অন্যদিকে সৌদিতে কাজ করছে পাকিস্তানের কয়েক লাখ মানুষ।
এদিকে গত ২ অক্টোবর সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের পর অনেকটা বন্ধু হারা হয়ে পড়ে সৌদি যুবরাজ ও রাজপরিবার। আন্তর্জাতিকভাবে ইতিহাসের সবচেয়ে বড় সঙ্কটে পড়ে দেশটি। খাশোগি হত্যার বিষয়টি প্রথমে সম্পূর্ণ অস্বীকার করলেও পরে তা স্বীকার করতে বাধ্য হয় সৌদি আরব। তবে এখনো পর্যন্ত খাশোগির লাশের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। বিষয়টি নিয়ে সৌদি আরবের ওপর এখনো চাপ অব্যাহত রয়েছে। এ সুযোগেরই সদ্ব্যবহার করেছেন ইমরান খান।
ব্যাপক আন্তর্জাতিক চাপের মধ্যেই গত ২৩ অক্টোবর রিয়াদের রিৎজ হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে দেশটির 'ফিউচার ইনভেস্টমেন্ট ইনিশিয়েটিভ সম্মেলন'। বিশ্বব্যাপী বিনিয়োগকারীদের সৌদি আরবের বিনিয়োগে আগ্রহী করতে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্বের বহু গণমাধ্যম, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসায়ী এ সম্মেলন বয়কট করলেও এতে হাজির ছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।
২২ গজের এক সময়ের এই চ্যাম্পিয়ন যে মাঠে নামলে খালি হাতে ফিরতে জানেন না। তাই ফিউচার ইনভেস্টমেন্ট ইনিশিয়েটিভ সম্মেলন থেকে কেবল চার-ছক্কাই নয়, রীতিমত সেঞ্চুরি হাঁকিয়েই প্যাভিলিয়নে ফেরেন ইমরান। সৌদির বিনিয়োগ সম্মেলনে গিয়ে উল্টো নিজেই ৬০০ কোটি ডলার বাগিয়ে নিয়েছেন।
সম্মেলনে সৌদি আরব ও পাকিস্তানের মধ্যে একটি সমঝোতা স্বাক্ষর হয়েছে। ওই সমঝোতা চুক্তি অনুযায়ী সৌদি আরব পাকিস্তানকে ৬০০ কোটি ডলার দেবে। সম্মেলনে গিয়ে ইমরান 'খানের চাওয়ার চেয়ে বেশি পাওয়া'তে বেশ খুশি তার অনুসারীরা।
তবে এতে শুধু ইমরান খানই নন, পাকিস্তানকে অর্থ দিতে পেরে খুশি সৌদি আরবও। খাশোগি হত্যার পর বন্ধুহীন হয়ে পড়া সৌদি যুবরাজ এ অর্থ দিয়ে বন্ধু খুঁজে পেলেন বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা। তাই বলাই যায়, আউট হলেন খাশোগি আর সেঞ্চুরি হাঁকালেন ইমরান!
শীর্ষনিউজ/এনএস