মঙ্গলবার, ১১-ডিসেম্বর ২০১৮, ০৭:২৬ অপরাহ্ন
  • স্বাস্থ্য
  • »
  • জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে জীবাণুর সংক্রমণে ৭ জনের মৃত্যু, ওটি বন্ধ

জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে জীবাণুর সংক্রমণে ৭ জনের মৃত্যু, ওটি বন্ধ

Shershanews24.com

প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০৩:৩৬ অপরাহ্ন

শীর্ষ নিউজ ডেস্ক: জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে কয়েক সপ্তাহের ব্যবধানে জীবাণুর সংক্রমণে মারা গেছেন ৭ জন রোগী। এরপরই ৪টি অপারেশন থিয়েটার বন্ধ করে দেয়ায় মৃত্যু ঝুঁকি নিয়ে হাসপাতাল ছাড়তে থাকেন ভুক্তভোগীরা। তবে এর কারণ হিসেবে ওটি সংস্কারের কথা বলছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তদন্ত প্রতিবেদনে গাফিলতির প্রমাণ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেবার কথা বলছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।
স্বামীর হার্টের অপারেশনের জন্য জাতীয় হৃদরোগ হাসপাতালে দীর্ঘ ১৬দিন থেকে ঘুরছেন চট্টগ্রাম থেকে আসা এক নারী। চরম উৎকণ্ঠায় স্বামীকে ওয়ার্ডে রেখে ঘুরে ফিরেই আসেন অপারেশন থিয়েটারের সামনে। অনির্দিষ্টকালের জন্য ওটি বন্ধ থাকায় চরম দুশ্চিন্তায় পড়েছেন তিনি।

ঈদের পর থেকে এখন পর্যন্ত সক্রিয় ৪টি অপারেশন থিয়েটারের সবকটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ইতিমধ্যেই হাসপাতাল ছেড়েছেন অসংখ্য রোগী। এছাড়া অপারেশন থিয়েটার কবে নাগাদ খুলবে সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা না থাকায় অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছেন রোগীরা।

হাসপাতাল পরিচালক দেশের বাইরে থাকায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে নারাজ কর্তৃপক্ষের কেউই। তবে কয়েকটি সূত্রে জানা যায়, পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে এ বিষয়ে গঠিত তদন্ত কমিটি ২৬টি সুপারিশমালা প্রস্তুত করেছে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মৃত্যুর বিষয়টি এড়িয়ে গেলেও ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. কাজী জাহাঙ্গীর হোসাইন। তিনি বলেন, ‘৭জন মারা গেছেন সত্য। এখন আমাদের এই ভাইরাস প্রতিরোধ করতে হবে। অবহেলার কারণে যদি এই মৃত্যু হয় তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আইন মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

৪টি ওটিতে প্রতি সপ্তাহে প্রায় ২০টি অপারেশন করা হয়। চরমভাবে সেবা ব্যাহত হলেও প্রাথমিকভাবে জীবাণু সংক্রমণ হতে পারে এমন ৪২টি স্থান শনাক্ত করা হয়েছে বলেও নিশ্চিত করে হাসপাতালের কয়েকটি সূত্র।
শীর্ষ নিউজ/এন