বুধবার, ২১-আগস্ট ২০১৯, ০১:২০ পূর্বাহ্ন
  • অর্থনীতি
  • »
  • ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে চলতি বছরের সর্বনিম্ন লেনদেন

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে চলতি বছরের সর্বনিম্ন লেনদেন

shershanews24.com

প্রকাশ : ০৭ এপ্রিল, ২০১৯ ০৭:০৮ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ, ঢাকা : সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) চলতি বছরের সর্বনিম্ন লেনদেন হয়েছে। এদিন ডিএসইতে লেনদেন লেনদেন হয়েছে ৩৩০ কোটি ৫৪ লাখ টাকা। যা চলতি বছরে সর্বনিম্ন আর্থিক লেনদেন। এর আগে গত ১৮ ডিসেম্ভব লেনদেন হয়েছিল ৩৩৪ কোটি টাকা। ওইদিনের পর রোববার ডিএসইতে সবচেয়ে কম শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে।

ডিএসইতে আর্থিক লেনদেনের পাশাপাশি কমেছে সব সূচক ও বাজার মূলধন। বাজার বিশ্লেষকদের মতে, পুঁজিবাজারে তারল্য সংকটের কারণে চলতি বছরের শুরুতে লেনদেন হাজার কোটি টাকা থেকে বর্তমানে তিনশ কোটি টাকার ঘরে নেমেছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থার সংকট তৈরি হবে।

রোববার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৩৩৪টি কোম্পানির ৬ কোটি ৬০ লাখ ৯৩ হাজার ৪৫৬টি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। লেনদেন হওয়া এসব কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে মাত্র ৭৩টির, কমেছে ২৫৬টির। দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৫টি কোম্পানির শেয়ারের।

দিনশেষে ডিএসইতে ৩৩০ কোটি ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে। আগের দিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৩৬৩ কোটি ২৬ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট। এদিন ডিএসই ব্রড ইনডেক্স আগের কার্যদিবসের চেয়ে ২৬ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৪৩৩ পয়েন্ট, ডিএস-৩০ মূল্য সূচক ৫ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৯৪২ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস শরীয়াহ সূচক ১০ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ২৫৮ পয়েন্টে নেমে আছে।

অন্যদিকে বৃহস্পতিবার চট্রগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২৪১টি কোম্পানির ৩ কোটি ৬৫ লাখ ৬৪ হাজার ৯৫৩টি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। লেনদেন হওয়া এসব শেয়ার ও ইউনিটের মধ্যে দাম বেড়েছে ৫৫টির, কমেছে ১৬১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫ টি কোম্পানির শেয়ার। দিনশেষে সিএসইতে ৯৫ কোটি ৬২ লাখ ৯৭ হাজার ৪২৭ টাকার শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে। এদিন সিএসইর প্রধান সূচক আগের দিনের চেয়ে ৭৫ পয়েন্ট কমে ১৬ হাজার ৬৬৫ পয়েন্ট নেমে আসে।

ডিএসইতে লেনদেনের ভিত্তিতে (টাকায়) প্রধান ১০টি কোম্পানি হলো, ইউনাইটেড পাওয়ার, ফরচুন সুজ, বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবলস, গ্রামীণফোন, মুন্নু সিরামিক, ইস্টার্ন ক্যাবলস, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো, ন্যাশনাল পলিমার ও ন্যাশনাল টিউবস্।

ডিএসইতে দাম বৃদ্ধির শীর্ষে প্রধান ১০টি কোম্পানি হলো, ইস্টার্ন ক্যাবলস, এসকে ট্রিমস, গ্ল্যাস্কোস্মিথ, রহিম টেক্স, উসমানিয়া গ্লাস, ন্যাশনাল টিউবস্, এটলাস বাংলা, ফিনিক্স ইন্সুরেন্স, আইসিবি এএমসিএল সেকেন্ড মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও এসিআই লিমিটেড।

অন্যদিকে দর কমার শীর্ষে প্রধান ১০টি কোম্পানি হলো ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো, ইউনাইটেড ইন্সুরেন্স, তাক্কাফুল ইন্সুরেন্স, আরামিট সিমেন্ট, প্রভাতি ইন্সুরেন্স, ফেডারেল ইন্সুরেন্স, সিএনএ টেক্সটাইল, এশিয়া ইন্সুরেন্স ও জেনেক্স ইনফোসিস।
শীর্ষকাগজ/এসএসআই