বৃহস্পতিবার, ১৮-জুলাই ২০১৯, ০৬:১৭ অপরাহ্ন

জেলেদের জালে ইলিশ, মুখে হাসি

shershanews24.com

প্রকাশ : ১৯ জুন, ২০১৯ ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন

শীর্ষকাগজ, চাঁদপুর: দেড় মাস হতাশায় কাটার পর মুখে হাসি ফুটেছে জেলেদের। কয়েকদিন ধরে জেলেদের জালে আটকা পড়ছে রুপালি ইলিশ। কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে চাঁদপুরের মাছঘাটে।
জাটকা রক্ষায় মার্চ-এপ্রিল দুই মাস চাঁদপুরের পদ্মা ও মেঘনায় সব ধরনের মাছ ধরা নিষিদ্ধ ছিল। ১ মে থেকে মাছ ধরা শুরু হলেও গত দেড় মাস তেমন একটা ইলিশ ধরা পড়ছিল না।
ইলিশ ব্যবসায়ীরা জানান, তিন-চার দিন ধরে দক্ষিণাঞ্চলের বরিশাল, ভোলা, হাতিয়া, সন্দ্বীপ, চরফ্যাশনসহ সাগর-সংলগ্ন মেঘনার মোহনার বিভিন্ন এলাকায় প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ছে। জেলেরা এসব ইলিশ সরাসরি নিয়ে আসছেন চাঁদপুর মাছঘাটে।
চাঁদপুরের পদ্মা ও মেঘনার দেড় কেজি ওজনের ইলিশ প্রতি কেজি ১ হাজার ৫০০ থেকে ১ হাজার ৬০০ টাকায়, এক কেজি ওজনের ইলিশ ১ হাজার ২০০ টাকায়, ৮০০ থেকে ৯০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ ৮০০ থেকে ৯০০ টাকায় এবং ৫০০ থেকে ৬০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ ৬০০ থেকে ৭০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
এই বাজারের ইলিশ ব্যবসায়ী আবু বকর বলেন, চাঁদপুরের স্থানীয় জেলেরাও চাঁদপুর ও হাইমচর এলাকায় পদ্মা ও মেঘনায় জাল ফেলে ইলিশ ধরছেন। তারা এই মাছঘাটে ব্যবসায়ীদের কাছে ইলিশ বিক্রি করছেন।
কয়েকজন ইলিশ ব্যবসায়ী জানান, তারা কোটি কোটি টাকা জেলেদের দাদন দিয়েছেন। এরপর ইলিশের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। প্রায় দেড় মাস এই মাছঘাটে ইলিশের সরবরাহ খুবই কম ছিল। কিন্তু কয়েক দিন ধরে প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ছে। এতে তারা খুশি।
মৎস্য বণিক সমিতির সাবেক সভাপতি মালেক খন্দকার বলেন, “এখন ইলিশের ভরা মৌসুম চলছে। তিন-চার দিন ধরে প্রতিদিন গড়ে ৩০০মণ ইলিশ এই মাছঘাটে নামছে।”
শীর্ষকাগজ/প্রতিনিধি/জে