শুক্রবার, ১৯-জুলাই ২০১৯, ০৬:২০ অপরাহ্ন
  • জেলা সংবাদ
  • »
  • বাঞ্ছারামপুরে জুয়াড়িদের হামলায় ৬ পুলিশ আহত

বাঞ্ছারামপুরে জুয়াড়িদের হামলায় ৬ পুলিশ আহত

shershanews24.com

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল, ২০১৯ ১১:২৬ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে মেলায় জুয়া খেলায় বাধা দেওয়াকে কেন্দ্র করে জুয়াড়িদের হামলায় ৩ জন কর্মকর্তাসহ ৬ পুলিশ আহত হয়েছে। হামলাকারীদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

মঙ্গলবার বিকাল ৫টার দিকে উপজেলার পূর্বহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার এএসআই মো. নাজমুল হক, শামীম আহম্মেদ, পিএসআই মো. ইফতেহার হোসেন মুন্সী, কনস্টেবল শাহআলম, জয়নাল ও ফয়েজ।

আহতদের মধ্যে উপসহকারী পরিদর্শক নাজমুল হক ও পিএসআই ইফতেখার হোসেন মুন্সীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বাঞ্ছারামপুর উপজেলার পূর্বহাটি ব্রিজসংলগ্ন পূর্বহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠের বটতলায় প্রতি বছরের মতো মঙ্গলবার সকালে মেলা বসে। মেলায় পূর্বহাটি ও ফরদাবাদ গ্রামের একদল যুবক জুয়ার আসর বসায়। এই খবর পেয়ে বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের ধাওয়া করে। পরে জুয়াড়ি ও তাদের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা করে। এ সময় তাদের হামলায় পুলিশের ৬ সদস্য আহত হয়। এই বিষয়ে অভিযুক্ত হামলাকারী ফরদাবাদ গ্রামের মো. সজল জানান, ‘বিকালে ৬/৭জন পুলিশ অকারণে মারতে থাকে। আমি প্রতিবাদ করায় পুলিশ আমার প্রতিও ক্ষিপ্ত হয়। এই ঘটনায় এলাকার মানুষ ক্ষিপ্ত হয়ে, কী হয়েছে আমি নিজেও বলতে পারব না। আমি কোনো জুয়ার আসর বসাইনি।’

এই ব্যাপারে ফরদাবাদ ইউনিয় পরিষদ চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহম্মেদ সেলিম বলেন, ‘পূর্বহাটি গ্রামে মেলায় জুয়া খেলায় পুলিশ বাধা দিলে জুয়াড়িদের হামলায় ৬ পুলিশ আহত হয়। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।’

এই বিষয়ে বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) কামরুজ্জামান তালুকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পূর্বহাটি মাঠে জুয়া হচ্ছে এই খবর পেয়ে একদল পুলিশ সেখানে গেলে একদল জুয়াড়িরা এ সময় পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে ৬ জনকে আহত করে। পুলিশের ওপর জুয়াড়িদের হামলার ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। হামলাকারী জুয়াড়িদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সবার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

এই বিষয়ে নবীনগর সার্কেলে এএসপি চিত্ত রঞ্জন পাল বলেন, ‘জুয়া খেলায় বাধা দেয়ায় আমাদের ৬ পুলিশ সদস্যের ওপর হামলা করে জুয়ার আসর বসানোর পক্ষের লোকজন। ফরদাবাদ গ্রামের সজল, নাহিদ, সোহেল, জামাল, দুলাল, আক্তারুজ্জামানসহ প্রায় ২৫-৩০ জনের একদল পুলিশের ওপর হামলা করে। এই সময় আমাদের ৬ পুলিশ আহত হয়। হামলাকারীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’
শীর্ষকাগজ/এসএসআই